বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

ads

‘ঢাকা হবে স্বপ্নের শহর, দূর হবে চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস ও ধর্ষণ’

OURISLAM24.COM
জানুয়ারি ১০, ২০১৮
news-image

গত ৩০ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে নগরপিতা শূন্য হয় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন। নতুন নগর পিতার সন্ধানে আসছে ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচন। এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সরব হয়ে উঠেছে প্রায় সবক’টি রাজনৈতিক দল।

সবাই ব্যস্ত তাদের বিশ্বস্ত ও পছন্দের প্রার্থীকে জনগণের কাছাকাছি নিয়ে যাওয়ার জন্য। জনসাধারণের বিশ্বাস অর্জন করার জন্য। এ দৌড়ে পিছিয়ে নেই ইসলামি রাজনৈতিক দলগুলোও। পিছিয়ে নেই মুফতি ফজলুল হক আমিনী রহ. এর রেখে যাওয়া রাজনৈতিক দল ‘ইসলামী ঐক্যজোটও।’

এবারের ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে ‘ইসলামী ঐক্যজোট’ প্রার্থী দিয়েছেন তাদের দলের সহকারী মহাসচিব, জননেতা ও বিশিষ্ট সমাজসেবক মাওলানা গাজী ইয়াকুবকে।

দেশের চলমান রোহিঙ্গা সঙ্কটে অসমান্য অবদান রাখা গাজী ইয়াকুব ঢাকাবাসীকে নিয়ে নিজের স্বপ্ন ও পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন আওয়ার ইসলামের সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন কাউসার লাবীব

আওয়ার ইসলাম : ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে আপনি মিনার প্রতীকে লড়বেন। আপনার সর্বশেষ নির্বাচনী প্রস্তুতি কেমন? গণমানুষের কাছাকাছি যাওয়ার জন্য কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন?

মাওলানা গাজী ইয়াকুব : আল্লাহামদুলিল্লাহ, নির্বাচনী প্রস্তুতি খুবই ভালো। আমি সাধারণ মানুষের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছি। তাদের খোঁজখবর নিচ্ছি। মানুষ আমাকে আশান্বিত করছেন, তারা আমাকে মূল্যবান ভোট দিয়ে তাদের সেবা করার সুযোগ দিবেন বলে আশা করছি।

আওয়ার ইসলাম : অতীতে ঢাকা উত্তরের জনগণের জন্য এমন কিছু কি করেছেন যা দেখে মানুষ আপনাকে ভোট দেবে?

মাওলানা গাজী ইয়াকুব : আমি শুধু নির্বাচন উপলক্ষে না, সবসময় তাদের পাশে থেকেছি। সাধারণ মানুষের বিপদে-আপদে পাশে থাকার চেষ্টা করি। রাত-বিরাতে তাদের সুখ-দুঃখের সঙ্গী হয়েছি। কেউ বিনা অপরাধে জেলে গেলে কিংবা কোনও অবিচার, অত্যাচারের শিকার হলে তাদের সাহায্য করেছি। বিভিন্ন ধর্মীয়, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে সাধ্যমতো আমি সহযোগিতা করেছি , করছি এবং করে যাবো ইনশাল্লাহ।

আওয়ার ইসলাম : আপনি কতদিন যাবৎ রাজনীতিতে সক্রিয়? রাজনৈতিক ময়দানে আপনার অতীত কেমন?

মাওলানা গাজী ইয়াকুব : আমি স্টুডেন্ট লাইফ থেকেই রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। মুফতি ফজলুল হক আমিনী রহ. এর হাত ধরে আামার এ ময়দানে আসা। ইসলামী ঐক্যজোটের ছাত্র সংগঠন থেকে রাজনীতি করতে করতে আজকে আমি এ পর্যন্ত এসেছি।

আমি ইসলামি প্রত্যেকটি ইস্যূতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছি। অনেকবার জেলে গিয়েছি। অনেক মামলা হয়েছে আমার নামে। আমি রাজনীতির ময়দানে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে গিয়ে, আমার ব্যবসায় ধস নেমেছে, কিন্তু আমি জনগণের মাঝ থেকে এবং রাজনীতির ময়দান থেকে পিছপা হইনি।

আওয়ার ইসলাম : রাজনীতিতে আপনার আদর্শ কে?

মাওলানা গাজী ইয়াকুব : রাজনীতিতে আমার আদর্শ মুফতি ফজলুল হক আমিনী রহ.। আমি এক্ষেত্রে তাকে পুরোপুরি অনুসরণ করার চেষ্টা করি। রাজনৈতিক ময়দানে তার সঙ্গে কাটানো মুহূর্তগুলো আমার রাজনীতির পাথেয়।

আওয়ার ইসলাম : ঢাকা উত্তরের মেয়র হলে আপনি ঢাকাবাসীর জন্য কী করতে চান?

মাওলানা গাজী ইয়াকুব : আমি ঢাকাকে বসবাস যোগ্য শহর বানাতে চাই। অপরিকল্পিতভাবে এ মেগাসিটিটি গড়ে উঠায় যানজট, বায়ূদূষণ, হালকা বৃষ্টিতেই রোডঘাটে পানি জমাসহ নগরবাসী খুবই দুর্ভোগে আছেন। আমি তাদের সজীব ও সুন্দর জীবন উপহার দিতে চাই।

আওয়ার ইসলাম : এগুলো কী আপনার স্বপ্ন না ইচ্ছা? এসব বাস্তবায়ন করা আপনার পক্ষে কতটা সহজ মনে করেন?

মাওলানা গাজী ইয়াকুব : এগুলো আমার স্বপ্ন নয়, ইচ্ছা। আর আমি মনে করি যদি জনগণ আমার পাশে থাকে, তাহলে শুধু এগুলো কেন? এর চেয়ে বড় বড় কাজ করাও সম্ভব। আশা করি জনগণ আমার পাশে থাকবে। ইনশাআল্লাহ।

আওয়ার ইসলাম : ভোটার ও জনগণকে আপনি আওয়ার ইসলামের মাধ্যমে কী বার্তা দিতে চান?

মাওলানা গাজী ইয়াকুব : আমি আমার ভোটার ও জনগণকে বলবো, আমি চাই ঢাকাকে নিরাপদ শহর বানবো। ঢাকা হবে স্বপ্নের শহর। এখান থেকে চিরতরে দূর হবে চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস, ধর্ষণ। আমি চাই ঢাকা উত্তরের জনগণ ও ভোটার আমার এ ইচ্ছা পূরণ করতে তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে সহযোগিতা করবেন।

তবে আমি যদি নির্বাচিত নাও হই। আমি আমার জনসেবা চালিয়েই যাবো। আমি সবসময় জনগণের পাশে থাকবো। তারা আমাকে সকালে, বিকেলে, সন্ধ্যায়, প্রভাতে, রাত-বিরাতে যখন ডাকবে, আমি তাদের পাশে এসে দাঁড়াবো। নেতা হিসেবে নয়, একজন ভাই হিসেবে। একজন মানুষ হিসেবে।

আওয়ার ইসলাম : আপনাকে সময় দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।

মাওলানা গাজী ইয়াকুব : আওয়ার ইসলাম পরিবারকেও মোবারকবাদ, আমার মনের কথাগুলো জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে সহযোগিতা করার জন্য। আশা করি আওয়ার ইসলাম সবসময় সত্য সংবাদ ও মতামতগুলো নিষ্ঠার সঙ্গে প্রচার করবে।

এ জাতীয় আরও খবর