শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭

ads

নাস্তিকদের জন্য বিপজ্জনক দেশের তালিকায় বাংলাদেশ

OURISLAM24.COM
ডিসেম্বর ৬, ২০১৭
news-image

আওয়ার ইসলাম : ধর্ম বা সৃষ্টিকর্তায় অবিশ্বাসীদের জন্য সবচেয়ে বিপজ্জনক  ৩০টি দেশের তালিকায় বাংলাদেশেরও নাম রয়েছে।আন্তর্জাতিক এক গবেষনায় এই তথ্য উঠে এসেছে।

বিশ্বের ৮৫টি দেশে ধর্মে অবিশ্বাসী বা নাস্তিকরা প্রচণ্ড বৈষম্য-নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যানিস্ট এ্যান্ড এথিক্যাল ইউনিয়ন (আইএইচইইউ) নামে একটি সংস্থার উদ্যোগে পরিচালিত গবেষণায় এ তথ্য জানা য়ায়। গবেষণা প্রতিবেদনটি এ সপ্তাহে ইউরোপীয় সংসদে পেশ করা হয়েছে।

গবেষণা রিপোর্টে বলা হয়,  ৮৫টি দেশের মধ্য থেকে অন্তত সাতটি দেশে গত এক বছরে নাস্তিকদের বিরুদ্ধে চরম নির্যাতন হয়েছে। এই সাতটি দেশ হলো, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, মৌরতানিয়া, ভারত, পাকিস্তান, সুদান, সৌদি আরব – ধর্ম অবিশ্বাসীদের ধরে ধরে বিচারের মুখোমুখি করা হচ্ছে। ৩০টি সবচেয়ে বিপজ্জনক দেশের তালিকায় বাংলাদেশের নাম রয়েছে।

এই তালিকায় আরো রয়েছে মিশর, কাতার, আফগানিস্তান, ইরান ও ইরাক। এর মধ্যে ১২টি দেশে ধর্মত্যাগীদের বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের বিধান রয়েছ।

যেসব দেশে সবেচয়ে বেশি বৈষম্য হয়েছে সেইদেশগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য,  আফগানিস্তান, চীন, বাহারাইন, বাংলাদেশ, ব্রুনেই, কমোরোস, মিশর, এরিত্রিয়া, ইথিওপিয়া, গাম্বিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, ইরাক, জর্দান, কুয়েত, লিবিয়া, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, মোওরিতানিয়া, মরক্কো, নাইজেরিয়া, উত্তর কোরিয়া, পাকিস্তান, কাতার, সৌদি আরব, সোমালিয়া, সিরিয়া, সুদান, সংযুক্ত আরব আমীরাত, ইয়েমেন।

যে সব দেশে নাস্তিকরা সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছে, সেগুলোর অধিকাংশই মুসলিম প্রধান দেশ। তবে এর উল্টো চিত্রও উঠে এসেছে গবেষণায়।

মুসলিম প্রধান দেশগুলো ছাড়াও,  কয়েকটি ইউরোপীয় দেশ এবং যুক্তরাষ্ট্রেও ধর্মে অবিশ্বাসী লোকজনের বিরুদ্ধে বৈষম্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

“বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রে ধর্মে অবিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে ঘৃণা বা বৈষম্য সাধারণ ঘটনা,” বলছেন ব্রিটেনের কেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ধর্ম বিষয়ক গবেষক ড লোয়া লি।

বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের তথাকথিত বাইবেল-বেল্টে নাস্তিকদের বিরুদ্ধে অসহিষ্ণুতা দিন দিন বাড়ছে।

 

আরএম/সূত্র -বিবিসি 

এ জাতীয় আরও খবর