শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭

ads

খুলনায় লটারীর নামে জুয়া: নির্বিকার প্রশাসন

OURISLAM24.COM
ডিসেম্বর ৬, ২০১৭
news-image

শেখ মোঃ নাসির, খুলনা সংবাদদাতা: খুলনা জেলা ও মহানগরে সদর, সোনাডাঙ্গা, খালিশপুর, দৌলতপুর ও ডুমুরিয়াসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় প্রতিদিন এক শ্রেনীর সাধারন মানুষ, স্কুল-কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থী লটারীর র‌্যাফেল ড্র’র নামে জুয়া খেলায় মেতে উঠেছে। বড় বড় পুরস্কারের লোভে তারা প্রতিদিন খোয়াচ্ছে হাজার হাজার টাকা। প্রকাশ্যে মাইকিং করে এই অবৈধ লটারীর টিকেট প্রশাসনের নাকের ডগায় বিক্রি হলেও ব্যবস্হা নিচ্ছেন না কেউ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে ও সরেজমিনে খোজ নিয়ে জানা গেছে, বিগত প্রায় ১৫ দিন যাবৎ খুলনা মহানগরের সদর থানাসহ আশ-পাশের এলাকা গুলোতে প্রতিদিন সকাল ১০ টা হতে রাত ৯টা পর্যন্ত বেশ কয়েকটি ইজি বাইকে তামান্না দৈনিক রাফেল ড্র নামীয় প্রতিটি ২০ টাকা মুল্যের অবৈধ লটারীর টিকেট বিক্রি করা হচ্ছে। আকর্ষনীয় বিজ্ঞাপন পুরস্কারের প্রলোভনে এলাকার খেটে খাওয়া সাধারন মানুষ, স্কুল- কলেজের শিক্ষার্থীসহ অন্যানরা এক বা একাধিক টিকেট কিনে প্রতারিত হচ্ছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে তাঁত বস্ত্র ও কুঠির শিল্প মেলা ২০১৭ উপলক্ষ্যে খুলনার আহত ও পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা সমবায় সমিতি লি: এর আয়োজনে এই লটারীর নামে জুয়া খেলা চলছে।

আরো জানা গেছে, প্রতিদিন রাতে নগরীর সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকার সমাজ কল্যান মাঠে প্রতিদিন রাতে বিক্রিত লটারী টিকেটের ড্র অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ড্র অনুষ্ঠানটি খুলনার ২টি ক্যাবল টিভি মিডিয়ায় সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছে। বিগত মাস খানেক যাবৎ জেলা- উপজেলা এলাকা গুলোতে মাইকিং করে লটারির টিকেট বিক্রি ও ঘটা করে দৈনিক র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠান প্রশাসনের নাকের ডগায় হলেও দেখার যেন কেউ নেই। প্রতিদিন লটারীর টিকেট বিক্রির নামে একটি অসাধু চক্র লুটে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা, অথচ কিছু না বুঝেই আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্হ হচ্ছে সাধারন মানুষ। অবিলম্বে লটারির নামে জুয়া খেলা বন্দের দাবী জানিয়েছেন সচেতন মহল।

এসএস/

এ জাতীয় আরও খবর