বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭

ads

হাইআতুল উলয়ার কো-চেয়ারম্যান হতে পারেন আল্লামা আবদুল হালীম বোখারী

OURISLAM24.COM
নভেম্বর ২১, ২০১৭
news-image

আবরার আবদুল্লাহ
বিশেষ প্রতিবেদক

গত ১১ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবনে কওমি শিক্ষা সনদের মান ঘোষণা করেন। এরপর ৩২ সদস্যের কমিটিকে স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সেখানে একজন চেয়ারম্যান ও একজন কো-চেয়ারম্যান রাখা হয়। বলা হয়, পদাধিকার বলে তারা হবেন বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাক থেকে।

গেজেটে হাইআতুল উলয়া তথা বেফাক চেয়ারম্যানকে ১৫ জন সদস্য কো-অপট করার ক্ষমতা দেয়া হয়।

কিন্তু সম্প্রতি হাইআতুল উলয়া লিল-জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের অন্তর্ভূক্ত বেফাক ব্যতীত ৫ বোর্ড ক্ষমতায় আরো ভারসাম্য আনার দাবি তোলে।

তারা একজন কো-চেয়ারম্যান ও ৫ জন সদস্য পদ দাবি করেন।

তাদের দাবির প্রেক্ষিতে হাইআতুল উলয়া ‘আইনী খসড়া’র একজন কো-চেয়ারম্যান অন্তর্ভূক্তির কথা বলা হয়েছে। আইনী খসড়ার ধারা ৪-এর ২ নং অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ ব্যতীত অপর ৫ বোর্ড হইতে হাইআতুল উলয়ার সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে কো-চেয়ারম্যান-২ হইবেন।’

বর্তমানে হাইআতুল উলয়ার ১ জন কো চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন বেফাকের সিনিয়র সহ সভাপতি আল্লামা আশরাফ আলী।

মঞ্জুরী কমিশনে আলোচনার জন্য নির্বাচিত হাইআতুল উলয়ার ১০ সদস্যের কমিটি এ আইনী খসড়া চূড়ান্ত করেন।

তবে কাল মঞ্জুরী কমিশন ও হাইআতুল উলয়ার সমন্বয়ে গঠিত ‘সাব কমিটি’ কো-চেয়ারম্যানের অন্তর্ভূক্তির বিষয়টি চূড়ান্ত করবেন বলে জানিয়েছেন বেফাক মহাসচিব মাওলানা আবদুল কুদ্দুস।

হাইআতুল উলয়ার উচ্চতর এ কমিটিতে প্রস্তাব পাশ হওয়ার পর থেকে নতুন কো-চেয়ারম্যান কে হবেন তা নিয়ে শুরু হয়েছে কল্পনা জল্পনা।

নতুন কো-চেয়ারম্যান হিসেবে ৩টি নাম উচ্চারিত হচ্ছে। তারা হলেন, আল্লামা আবদুল হালিম বোখারী, আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ ও মুফতি রুহুল আমীন।

তবে ৫ বোর্ডের প্রধান পছন্দ আল্লামা আবদুল হালীম বোখারী। এমনকি আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসউদের পছন্দ তিনি।

আল্লামা মুফতী আব্দুল হালিম বুখারী চট্টগ্রামের আল-জামিয়া আল-ইসলামিয়া পটিয়ার প্রধান পরিচালক ও শাইখুল হাদীস। এছাড়াও শিক্ষাবোর্ড ইত্তেহাদুল মাদারিসিল কওমিয়া চট্টগ্রামের মহাসচিব তিনি।

হাইআতুল উলয়ার ১০ সদস্যের কমিটিতেও তার ব্যাপারে অনানুষ্ঠানিকভাবে আলোচনা হয়েছে বলে একাধিক সূত্রে জানতে পেরেছে আওয়ার ইসলাম।

তানযীমুল মাদারিসিদ দ্বীনিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মুফতি আরশাদ রাহমানির সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত নয়। ৫ বোর্ড মিলে হাইআতুল উলয়ার মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নিবো।’

আল্লামা আবদুল হালিম বোখারির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘হুজুর আমাদের মুরব্বি ও সর্বজন শ্রদ্ধেয়। তাই এটা অসম্ভবন নয় যে, সবাই তাকে পছন্দ করবেন।

অন্যদিকে আল্লামা আবদুল হালীম বোখারীর প্রতি আযাদ দ্বীনী এদারায়ে তা’লীম বাংলাদেশ-এর সমর্থন রয়েছে বলে জানিয়েছেন বোর্ডের প্রতিনিধি মাওলানা এনামুল হক।

তিনি আওয়ার ইসলামকে জানান, ‘হুজুরের (আল্লামা বোখারী) প্রতি আমাদের সমর্থন রয়েছে। আমি মনে করি, অন্যান্য বোর্ডেরও নৈতিক সমর্থন রয়েছে তার ব্যাপারে। তবে এ ব্যাপারে আনুষ্ঠিক কোনো আলোচনা হয় নি এবং কোনো প্রাতিষ্ঠানিক কোনো সিদ্ধান্তও হয় নি।’

জাতীয় দ্বীনি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডের মহাসচিব মুফতি মোহাম্মদ আলীও মনে করেন, আল্লামা আবদুল হালীম বোখারী কো-চেয়ার‌ম্যান পদের জন্য যোগ্য ব্যক্তি এবং তিনি হলে তা অযৌক্তিক কিছু হবে না।

ইউজিসির সঙ্গে হাইআতুল উলয়ার বৈঠক, সাব কমিটি গঠন

বাংলাদেশের বিপদে সর্বোচ্চ দানকারী যে ব্যক্তি

এ জাতীয় আরও খবর