সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭

ads

‘আমি চলে যাবো কিন্তু হেফাজতের ব্যানারে সবাইকে এক থাকতে হবে’

OURISLAM24.COM
অক্টোবর ২৫, ২০১৭
news-image

আওয়ার ইসলাম
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির ও হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেছেন, হেফাজত একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। বাতিলের মোকাবিলায় হেফাজতে ইসলাম সব সময় সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে।

তিনি ভবিষ্যতে তার অবর্তমানে আলেমদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে জোর দিয়ে বলেন, ইসলামের বিরুদ্ধে সব ষড়যন্ত্রের মোকাবিলা করতে হেফাজতে ইসলামের সকল নেতৃবৃন্দ ও কর্মীকে মতানৈক্যের বেড়াজাল ছিন্ন করে ঐক্যবদ্ধ প্লাটফরমে আসতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমি চলে যাবো। কিন্তু হেফাজতে ইসলামের ব্যানারে সবাইকে এক থাকতে হবে। বর্তমানে আমাদের মূল সমস্যা পরনিন্দা। এই পরনিন্দা থেকে উলামায়ে কেরামকে অবশ্য বিরত থাকতে হবে।

আগামী ২৪ ও ২৫ নভেম্বর চট্টগ্রাম লালদীঘি ময়দানে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ কর্তৃক ঐতিহাসিক শানে রিসালাত সম্মেলন বাস্তবায়ন উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ শাখার যৌথ উদ্যোগে ২৪ অক্টোবর বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

শানে রিসালাত সম্মেলন বাস্তবায়ন উপলক্ষে হেফাজত আমীর শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী  বলেন, মোকাবিলায় হেফাজতে ইসলাম সব সময় সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে।

নারীনীতি, নাস্তিকবাদী ষড়যন্ত্র, ইসলাম বিদ্বেষী ব্লগারচক্র, আহলে হাদীছ, কাদিয়ানী, মাযার পূজারী, বিদআতিসহ সকল ফিরকায়ে বাতিলার অপচক্রান্ত রুখে দিয়ে ইসলামের স্বকীয়তা বজায় রাখতে হেফাজতে ইসলাম বদ্ধপরিকর।

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, হেফাজতে ইসলামকে অনেকেই রাজনীতির সাথে তালগোল পাকিয়ে উপস্থাপনের অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এটা নিছক ষড়যন্ত্র বৈ কিছু নয়। এব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

শানে রিসালাত সম্মেলনকে সার্বিকভাবে সফল করতে সকলের একনিষ্ঠ মেহনত ও প্রচেষ্টার প্রয়োজন। এই শানে রিসালাত সম্মেলনের মাধ্যমে হকের বার্তা সর্বস্তরে পৌঁছে দিতে হবে। আমরা সম্মিলিতভাবে চেষ্টা চালালে ইনশাআল্লাহ শানে রিসালত সার্বিকভাবে সফল হবে।

লালদিঘীর শানে রিসালতের সার্বিক তত্ত্বাবধান ও বাস্তবানের লক্ষ্যে হেফাজেত ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীকে আহবায়ক করে একটি কমিটি গঠন করা হয়।

হাফেয মাওলানা তাজুল ইসলামকে যুগ্ন আহবায়ক, মাওলানা সলিমুল্লাহ সদস্য সচিব, মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা মুঈনুদ্দীন রুহী, মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী ও মাওলানা সরওয়ার আলম যুগ্ন সদস্য সচিব এবং মাওলানা লোকমান হাকিমকে অর্থ সচিব করা হয়।

অন্যান্যদের মধ্যে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা আইয়ুব বাবুনগরী, মাওলানা ইসহাক নূর, মাওলানা মুযাম্মেল হক, মাওলানা সরওয়ার কামাল আজিজি, মাওলানা হাবীবুল্লাহ নদভী, মাওলানা শিহাব উদ্দিন, হাফেয তৈয়ব, মাওলানা মীর ইদ্রিস, মাওলানা মাহবুবুর রহমান হানিফ, হাফেয মাওলানা জাকারিয়া, মুফতি হাসান মুরাদাবাদী, মুফতি শিহাব উদ্দিন, মাওলানা আলমগীর, মাওলানা নাছির উদ্দিন মনির, মাওলানা শফিউল আলম, মাওলানা জয়নাল কুতুবী, মাওলানা জুনাইদ, মাওলানা মুহাম্মদ আলী, মাওলানা জুনাইদ জাওহার, মাওলানা ইবরাহিম খলীল, মাওলানা আহমাদুল্লাহ ও মাস্টার আহসানুল্লাহ প্রমুখ।