বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭

ads

এমন একটি বাড়ি যদি আপনাকে উপহার দেয়া হয়!

OURISLAM24.COM
অক্টোবর ২০, ২০১৭
news-image

আরিফ আজাদ

ধরুন আপনাকে একটি নির্জন দ্বীপে রেখে আসা হলো। এটি এমন একটি দ্বীপ যেখানে এর আগে আপনি আর কখনোই আসেন নি। দ্বীপের পরিবেশ, আবহাওয়া সবকিছুই নতুন। আপনার পরিচিত কোনকিছুই যেন এখানে নেই।

কিছুদূর হাঁটতে গিয়ে ধরুন একটি অনিন্দ্য সুন্দর বাড়ি দেখতে পেলেন। কারুকার্যময় এই বাড়িটি দেখে আপনি যেন নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছেন না। কে বানালো এটি? এতো সুন্দর! এতো মনোরম! এতো মনোহর!

এই বাড়িতে যে পাথর ব্যবহার করা হয়েছে তা আপনি জীবনেও চোখে দেখেন নি।

এটি মণি-মুক্তোর নয়, এ পাথর যেন তারচেয়েও আরো অনেক অনেক অনেক বেশি কিছু।

এই বাড়ির যে ডিজাইন, এই ডিজাইন কোন মানুষ করতে পারে বলে আপনার মনেই হচ্ছেনা। অসম্ভব।
আপনি যখন চোখ কচলাতে কচলাতে স্বপ্নে আছেন না বাস্তবে সে ব্যাপারে নিশ্চিত হতে চাইছেন, ঠিক তখনি আপনার হাতে একখানা কাগজ চলে এলো।

সেই কাগজে বাড়ির মালিক হিসেবে বিশাল বিশাল অক্ষরে আপনার নাম লেখা।
আপনি আরো একবার শক খেলেন। কী হচ্ছে এসব?

কাগজটি খুললেন। খুঁজতে লাগলেন কী এর রহস্য…
একটা পর্যায়ে গিয়ে দেখলেন, এই বাড়িটা আপনাকে উপহার করা হয়েছে।

আপনি আপনার দৈনিক সময় থেকে ২০ মিনিট এমন কিছু কাজে ব্যয় করতেন, যার জন্য আজকে আপনাকে এই অনিন্দ্য সুন্দর বাড়িটি উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছে।

আপনি অবাক হলেন। দৈনিক মাত্র ২০ মিনিট ব্যয় করাতেই এই উপহার!!!!!

ভাবছেন গল্পটি অবাস্তব? ঠিক ধরেছেন। গল্পটি আপাতঃ অবাস্তব। তবে, এই অবাস্তব এমন ক্যাটাগরির অবাস্তব, যেটাকে চাইলেই বাস্তবে রূপ দেওয়া যায়।

দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ি না আমরা? এই পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে ফরজ নামাজ ছাড়া সুন্নত (সুন্নতে মুয়াক্কাদা) আছে কতো রাকা’ত?

ফজর নামাজের আগে দুই রাকাত, যোহরের আগে চার রাকাত, পরে দুই রাকাত, মাগরিবের পরে দুই রাকাত, এশার পরে দুই রাকাত। মোট হলো বারো রাকাত। এই বারো রাকাত সুন্নত সালাত আদায় করতে আমাদের কতো সময় লাগে? সর্বোচ্চ বিশ মিনিট যায়।

আপনি কী জানেন এই বারো রাকাত সুন্নত সালাত ঠিকমতো আদায় করলে জান্নাতে আল্লাহ তা’লা আপনার জন্যও ঠিক উপরে বর্ণিত, কিংবা তারচেয়েও অনেক অনেক বেশি মনোরম বাড়ি নির্মাণ করবেন?

“হযরত উম্মে হাবীবা (রাঃ) থেকে বর্ণিত,- তিনি বলেন, ‘রাসুল (সাঃ) বলেছেন, যে ব্যক্তি ফরজ নামাজ গুলো ব্যতিত শুধু মাত্র আল্লাহর উদ্দেশ্যে দৈনিক বারো রাকাত সুন্নত আদায় করে, আল্লাহ তা’য়ালা তার জন্য জান্নাতে একটি ঘর নির্মাণ করেন।”

( রিয়াদুস সালেহিন ১০৯৭, মাওয়ারিদুজ জামআন ৬১৪, নাসাঈ ১৪৮০, মুসনাদ আহমদ ইবনে হাম্বল ২৬৮১৭, ইবনে মাজাহ ১১৪১ )

জান্নাতে একটি ঘর! ভাবতে পারেন? জান্নাতের বর্ণনায় পাওয়া যায়, এটি এমন যা কোন চোখ কোনদিন দেখেনি, কোন হাত কোনদিন স্পর্শ করেনি।

সেই ঘরের কারুকার্যতা, ডিজাইন, পাথরকে দুনিয়ার কোন রত্নের সাথে তুলনা করবেন? সম্ভব কী?

অথচ, জান্নাতে এই ঘরটি উপহার পাওয়ার দূর্দান্ত, দূর্লোভ এই সুযোগটি পেতে আপনাকে কী করতে হবে জানেন? কেবল ফরজ নামাজের আগে-পরের সুন্নতগুলো ঠিকমতো আদায় করতে হবে।

দৈনিক চব্বিশ ঘন্টা সময় থেকে বিনিয়োগ করতে হবে মাত্র বিশ মিনিট।

এর বিনিময়ে জান্নাতে বাড়ি। আহা…!!