মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭

ads

ইসলামি সমাজব্যবস্থার না থাকায় নারীরা নির্যাতিত: মুফতি ফয়জুল করীম

OURISLAM24.COM
অক্টোবর ৭, ২০১৭
news-image

আওয়ার ইসলাম : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম বলেছেন, ইসলামি তাহজিব-তামাদ্দুন ও ইসলামি শিক্ষা থেকে দূরে সরে থাকার কারণে সর্বত্র নারী নির্যাতন, নারী ধর্ষণ, অপহরণ, ইভটিজিং মহামারি আকার ধারণ করেছে।

তিনি বলেন, পর্দা নারীর ভূষণ, পর্দা ছেড়ে দিয়ে সমান অধিকারের কথা বলার পর থেকে নারীদের প্রতি বৈষম্য মারাত্মক আকার ধারণ করছে। ইসলাম সবচেয়ে বেশি নারীদের অধিকার দিয়েছে। নারীদের সমান অধিকার নয়, অগ্রাধিকারে বিশ্বাসী। কাজেই ইসলাম তথা কুরআন বর্ণিত নারী অধিকার বাস্তবায়ন করলে নারীরা সবচেয়ে নিরাপদ থাকতে পারবে। এছাড়া যত অধিকারের কথা বলা হোক তাতে সত্যিকারের নারী অধিকার প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয়।

গতকাল রাজধানীর মুহাম্মদপুরের সাদেকখান সড়কের পুলপাড় অনুষ্ঠিত ইসলামি মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

শেখ মুহাম্মদ হোসেন খোকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মহাসম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাওলানা ওমর ফারুক নূরী, মাওলানা নজরুল ইসলাম।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মুফতি নূরুল আমীন, মুফতি ফরীদুদ্দিন মাসউদ, মুফতি মাহমূদুল হাসান, মুফতি তাফাজ্জুল হুসাইন, মুফতি রেজাউল করীম, মৌলভী মহিউদ্দিন প্রমুখ।

মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন, শিরকমুক্ত ইবাদত ছাড়া আল্লাহর কাছে ইবাদত কবুল হয় না। তাই শিরকমুক্ত সমাজ গঠনে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি বলেন, কতিপয় ভ্রান্ত আকীদায় বিশ্বাসী লোকজন মানুষকে বিপথে নিয়ে যেতে পীর মাশায়েখদের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত হচ্ছে। তিনি এসকল ভ্রান্ত বিশ্বাসীদের থেকে দূরে থাকার আহবান জানান।