মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭

ads

ভিসা হওয়ার পরও ৯০ ভাগ যাত্রীকে সৌদি পাঠায় ৩৭৭ হজ এজেন্সি

OURISLAM24.COM
আগস্ট ১০, ২০১৭
news-image

আওয়ার ইসলাম : ভিসা হওয়ার পরও নির্ধারিত কোটার শতকরা ৯০ ভাগ হজযাত্রীকে সৌদি আরব না পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে ৩৭৭ এজেন্সির বিরুদ্ধে। এবং এ পর্যন্ত (১০ আগস্ট) ২৭টি সিডিউল হজ ফ্লাইট বাতিল করতে হয়েছে।

জানা গেছে, চলতি বছর মোট ৩৭৭টি এজেন্সির সর্বোচ্চ ২৬৪ জন থেকে সর্বনিম্ন ছয়জন পর্যন্ত হজযাত্রীর ভিসা থাকার পরও ইচ্ছাকৃতভাবে যাত্রী না পাঠানোর ফলে হজ ফ্লাইটের সিডিউলে এ বিপর্যয় সৃষ্টি হয়েছে।

ধর্ম মন্ত্রণালয় পরিচালিত হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম একটি গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ইমিগ্রেশন থেকে প্রাপ্ত তালিকায় ৩৭৭ টি এজেন্সি ভিসা থাকা সত্ত্বেও ৯০ ভাগ হজযাত্রীকে সৌদি আরব পাঠায়নি। এ কারণেই হজ ব্যবস্থাপনায় বিঘ্ন হচ্ছে। এসব এজেন্সির যাত্রীদের কোন এয়ারলাইন্স কত তারিখের জন্য বুকিং দিয়েছে এর প্রমাণপত্রসহ হজ অফিসে আজই (বৃহস্পতিবার) দাখিল করতে বলা হয়েছে।

গত ২৪ জুলাই হজ ফ্লাইট শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত বাতিল হওয়া ২৭টি ফ্লাইটের মধ্যে ২৩টি বিমান বাংলাদেশের এবং চারটি সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের। এসব ফ্লাইট বাতিল হওয়ায় ১৫ দিনে বিমানের ক্ষতি হয়েছে ৪৪ কোটি টাকা। বিদ্যমান পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে এ ক্ষতির পরিমাণ ১৫০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যেতে পারে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গতকাল বুধবার পর্যন্ত ৮৫ হাজার ৬৮৬ জনের ভিসা হয়েছে। এছাড়া ১১ হাজার ১১৮ জনের ভিসা প্রক্রিয়াধীন। বিপুল সংখ্যক এ হজযাত্রীর ভিসা থাকার পরও যাত্রীর অভাবে বাতিল করতে হচ্ছে ফ্লাইট।