বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

ads

ভারতে পাঠ্যবইয়ে নারীদেহের বর্ণনা, নিন্দার ঝড়

OURISLAM24.COM
এপ্রিল ১৬, ২০১৭
news-image

ভারতের স্কুলে একটি পাঠ্য বইতে নারীদের অবমূল্যায়ন করে একটি নিবন্ধ প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ‘নারীদেহের আদর্শ অনুপাত’ শেখাতে লেখা হয়েছে, ‘মেয়েদের বুক-কোমর-নিতম্বের সেরা অনুপাত হচ্ছে ৩৬-২৪-৩৬’।

এতে বলা হয়, যে সব নারী সাধারণত মিস ওয়ার্ল্ড এবং মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়াদের মধ্য থেকে এমন ফিগারের নারীদের বেছে নেয়া হয়। সংবাদ: ইন্ডিয়া টুডে

ইতোমধ্যে হেল্থ এন্ড ফিজিক্যাল এডুকেশন নামের পাঠ্য বইটির ওই পৃষ্ঠার ছবি ভারতের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। চলছে তুমুল সমালোচনা।

সেন্ট্রাল বোর্ড অব সেকেন্ডারি এডুকেশনের জন্য নির্ধারিত ওই পাঠ্য বইটিতে ‘ওয়াট ইজ দ্য পারফেক্ট বডি টাইপ? এর উত্তরে বলা হয়, নারী এবং পুরুষ দেহের মধ্যে অনেকগুলো পার্থক্য রয়েছে।…‘মেয়েদের বুক-কোমর-নিতম্বের সেরা অনুপাত হচ্ছে ৩৬-২৪-৩৬’।

‘নারীদেহের আদর্শ অনুপাত’ প্রসঙ্গ ছাড়াও বইটিতে বলা হয়েছে, ‘মেয়েদের বস্তিপ্রদেশের হাড় অপেক্ষাকৃত চওড়া’ এবং তাদের দুই হাঁটুর মধ্যেও কিছুটা ফাঁক থাকে। ‘এমন আকৃতির জন্য মেয়েরা ঠিকমত দৌড়াতে পারে না।’

বইটিতে এমন কথা লেখার অভিযোগ ওঠার পর এ ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষা বিষয়ক মন্ত্রী প্রকাশ জাভাদেকর।

সাংবাদিকদের কাছে এরকম ‘পুরুষতান্ত্রিক’ মানসিকতার বইয়ের তীব্র নিন্দা করে তিনি বলেছেন- “এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।” স্কুলে এ বই পড়ানো অবিলম্বে বন্ধ করতে বলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জাভাদেকর।

বইটি ছেপেছে একটি বেসরকারি প্রকাশনী।  দিল্লি ভিত্তিক প্রকাশনীটি বলেছে তারা বইটি ছাপ ও বিতরণ ইতিমধ্যেই বন্ধ করে দিয়েছে। কর্মকর্তারা বলছেন, তারা বেসরকারিভাবে প্রকাশিত বইএর ওপর নজরদারি করতে অক্ষম।

এর আগে মহারাষ্ট্রে এক পাঠ্যবইয়ে লেখা হয়, ‘কুৎসিত’ এবং ‘বিকলাঙ্গ’ মেয়েদের কারণে যৌতুক নেবার প্রবণতা বেড়ে যাচ্ছে।

ফেব্রুয়ারি মাসে একটি পাঠ্যবইয়ে ‘কিভাবে বিড়ালের বাচ্চাকে গলা টিপে মারতে হয়’ তার বর্ণনা ছিল। এটিকে কেন্দ্র করে প্রাণী অধিকারকর্মীরা হৈচৈ তোলেন।

২০১২ সালে একটি পাঠ্যবইয়ে বলা হয়, ‘যারা মাংস খায় তারা অসৎ হয়, খুব সহজেই প্রতারণা করে, মিথ্যে বলে, কথা রাখে না, খারাপ কথা বলে।’

এছাড়া ২০১৪ সালে গুজরাট রাজ্যের একটি পাঠ্যবইয়ে বলা হয় ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় আমেরিকায় পরমাণু বোমা ফেলেছিল জাপান।’

৪ কারণে রাতে তরমুজ খাওয়া নিষেধ