বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭

ads

এ বছরের দাওরায়ে হাদিসের শিক্ষার্থীরা কি মাস্টার্সের মান পাবে?

OURISLAM24.COM
এপ্রিল ১৫, ২০১৭
news-image

আতাউর রহমান খসরু : মহামান্য রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে কওমি শিক্ষা সনদের স্বীকৃতি দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রজ্ঞাপনের ৩.৩ ধারায় বলা হয়েছে অভিন্ন প্রশ্নপত্র তৈরির কথা। তাই বলা যায়, সনদের মান পাওয়া ও না পাওয়া অনেকটা নির্ভর করছে অভিন্ন প্রশ্নে পরীক্ষার হওয়ার উপর। গুঞ্জনও উঠেছে এ বছর থেকেই শুরু হবে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা।

কিন্তু এতো সংক্ষিপ্ত সময়ে কী অভিন্ন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা হওয়া সম্ভব? যদি না হয় তবে এ বছর যারা পরীক্ষা দিবে তারা সনদের মান পাবে কী? প্রশ্ন করেছিলাম, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ার ভারপ্রাপ্ত মহসচিব মাওলানা আবদুল কুদ্দুসকে। তিনি বলেন, ‘আগমামীকালের বৈঠকের পর এসব প্রশ্নের উত্তর দেয়া যাবে। আগামীকালের বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে বলে তিনি জানান।’

আগামীকালের বৈঠকে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষার ব্যাপারে আলোচনা হবে বলে নিশ্চিত করেছেন বেফাকের সহ-সভাপতি আল্লাামা আযহার আলী আনোয়ার শাহ।

তবে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে এ বছরই পরীক্ষা দিতে প্রস্তুত নয় চট্টগ্রামের বোর্ড আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিসিল কওমিয়া। বোর্ডের চেয়ারম্যান আল্লামা আবদুল হালীম বোখারী বলেন, এ বছর অন্তত আমাদের বোর্ড অভিন্ন প্রশ্ন পরীক্ষা দিবে না। কারণ, পরীক্ষার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে এবং পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ও খাতাগুলোও ইতোমধ্যে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বেফাক ও ফরীদ সাহেবের বোর্ড ব্যতীত বাকি চার বোর্ড অভিন্ন প্রশ্নে পরীক্ষা হওয়ার ব্যাপারে একমত নই। কেননা হাটহাজারিতে সম্মিলিত বোর্ডের মিটিংয়ে আমরা সিদ্ধান্ত জানিয়েছিলাম, প্রত্যেক বোর্ড নিজের মতো করে পরীক্ষা নেবে ও সনদ দেবে এবং সরকার তার মান দেবে। কেননা বোর্ডের সিলেবাসের ভিন্নতা আছে, বেফাকের পরীক্ষা হয় ১০টি বিষয়ে আমাদের হয় ৬ বিষয়ে। এমন অনেক ভিন্নতা রয়েছে বোর্ডগুলোর পরীক্ষা পদ্ধতির মধ্যে।’

একই কথা বলেছেন, বেফাকুল মাদারিসিল কওমিয়া গহরডাঙ্গা বোর্ডের সভাপতি মুফতি রুহুল আমীন। তিনি বলেন, ‘অভিন্ন প্রশ্নে পরীক্ষার ব্যাপারে এখনি কিছু বলা যাচ্ছে না। সবাই মিলে বসলেই সিদ্ধান্ত দেয়া যাবে।’

তবে তিনি বলেন, ‘অভিন্ন প্রশ্নের প্রস্তাব আসতে পারে। কিন্তু এবার হয়তো তা সম্ভব হবে না। কারণ আমাদের সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে।’

তিনি অভিন্ন প্রশ্নে পরীক্ষার যৌক্তিকতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, ‘জেনারেল লাইনে মাস্টার্সের পরীক্ষা অভিন্ন প্রশ্নে হয় না। তাই আলোচনা উঠলে বিষয়টি প্রত্যাখ্যাত হতে পারে।’

এআরকে

হাটহাজারীতে কওমি স্বীকৃতি কমিটির ১ম বৈঠক রবিবার

স্বীকৃতি বাস্তবায়নে এখনো আন্তরিকতাপূর্ণ ঐক্যের অভাব রয়েছে: মাওলানা মাহফুজুল হক