শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭

ads

রোববার শুরু হজের প্রাক-নিবন্ধন

OURISLAM24.COM
জানুয়ারি ১২, ২০১৭
news-image

haj-soudiআওয়ার ইসলাম: আগামী রোববার শুরু হচ্ছে হজে গমনেচ্ছুদের প্রাক-নিবন্ধন। খরচও কিছুটা বাড়তে পারে এবার।

চার বছর পর হজযাত্রীর পূর্বনির্ধারিত কোটা ফিরে পাচ্ছে বাংলাদেশ। এ বছর এক লাখ ২৭ হাজার বাংলাদেশি হজ পালনের সুযোগ পাচ্ছেন, যা গত বছরের চেয়ে প্রায় ২৬ হাজার বেশি।

পবিত্র হেরেম শরিফ সংস্কারকাজের জন্য ২০১৩ সাল থেকে অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের হজযাত্রীর কোটা ২০ শতাংশ কমিয়ে দেয় সৌদি আরব। এই নির্দেশনা অনুযায়ী গত বছর পর্যন্ত এ দেশের হজযাত্রীর কোটা ছিল এক লাখ এক হাজার ৭৫৮ জন। সংস্কারকাজ প্রায় শেষ হয়ে যাওয়ায় এবার হজযাত্রীর পূর্ণ কোটা ফিরিয়ে দেওয়ার আভাস দিয়েছে দেশটি। তবে এ বিষয়ে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি বলে জানিয়েছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল জলিল।জানা গেছে, চলতি বছর হজে যাওয়ার খরচ কিছুটা বাড়তে পারে। সাড়ে তিন হাজার থেকে সাড়ে ১৩ হাজার টাকা পর্যন্ত বাড়িয়ে দুটি হজ প্যাকেজ চূড়ান্ত করছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে চূড়ান্ত করা হচ্ছে এবারের হজ নীতিমালা। শিগগিরই এ দুটি বিষয় মন্ত্রিসভায় উত্থাপন করা হচ্ছে। তবে প্রাক-নিবন্ধন শুরুর আগে প্যাকেজ ঘোষণা হচ্ছে না।

সূত্র অনুযায়ী, চলতি বছরের হজযাত্রীদের অনলাইনে প্রাক-নিবন্ধন শুরু হচ্ছে আগামী রবিবার। তবে এদিন থেকে শুধু সরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন করা হবে। আর প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শেষ করে পরবর্তী সপ্তাহ থেকে বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন শুরু হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান। অনলাইনে প্রাক-নিবন্ধনের সময় প্রত্যেক হজযাত্রীকে নিবন্ধন ফিসহ ৩০ হাজার টাকা নির্ধারিত ব্যাংকে জমা দিতে হবে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল জলিল বলেন, ‘পবিত্র হেরেম শরিফ সংস্কারের কাজ এপ্রিলের দিকে শেষ হয়ে যাবে। তাই আমরা আশা করছি, এ বছর আগের মতো বাংলাদেশি হজযাত্রীর কোটা এক লাখ ২৭ হাজার হবে। ’ এ বছর হজ প্যাকেজে খরচ কিছুটা বাড়বে বলেও আভাস দেন তিনি।

মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন বলেন, ‘সংস্কারকাজ শেষ হওয়ায় হজযাত্রীর কোটা ওপেন হয়েছে বলে আমরা শুনেছি। সে ক্ষেত্রে এক লাখ ২৭ হাজারের কিছু বেশিসংখ্যক মুসল্লি এবার হজ পালনের সুযোগ পাবেন। তবে সৌদি কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো চিঠি দেয়নি। আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি দুই দেশের মধ্যে এবারের হজচুক্তি সম্পাদিত হওয়ার কথা। সেই সময় হজযাত্রীর কোটার বিষয়টি স্পষ্ট হবে। ’ তিনি জানান, সরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন শুরু হচ্ছে রবিবার। এর সপ্তাহখানেক পর বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন শুরু হতে পারে।

বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রী নিবন্ধন যথাসময়ে শুরু না হওয়ার কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে হজ অফিসের আইটি কর্মকর্তা কবির আল মামুন জানান, সরকারি ব্যবস্থাপনার নিবন্ধন-সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হলেও বেসরকারি এজেন্সি-সংশ্লিষ্টদের প্রশিক্ষণ শুরু হবে আগামীকাল শুক্রবার। ২৩ জানুয়ারি তা শেষ হতে পারে। তার পরই বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন শুরু হতে পারে। আর এই নিবন্ধন কার্যক্রম কত দিন চলবে তা এখনো ঠিক হয়নি।

এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ১৭ হাজার ব্যক্তির হজে যাওয়ার সুযোগ হতে পারে। এর মধ্যে গেল বছর প্রাক-নিবন্ধিত প্রায় ৪০ হাজার ব্যক্তি অগ্রাধিকার পাবেন। কোটার অতিরিক্ত হওয়ায় তাঁরা গেল বছর হজে যাওয়ার সুযোগ পাননি।

সূত্র জানায়, এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ প্যাকেজের মূল্য প্রস্তাব করা হয়েছে জনপ্রতি তিন লাখ ৭৩ হাজার ৬৭২ টাকা। বি-প্যাকেজের মূল্য নির্ধারণ হয়েছে তিন লাখ আট হাজার ৬২৮ টাকা। এ ছাড়া প্রত্যেক হজযাত্রীকে কোরবানি খরচ বাবদ সাড়ে ১০ হাজার টাকার সমপরিমাণ ৫০০  সৌদি রিয়াল নিজ দায়িত্বে সঙ্গে নিতে হবে। ২০১৬ সালে এই প্যাকেজের মূল্য ছিল জনপ্রতি তিন লাখ ৬০ হাজার ২৮ টাকা আর বি-প্যাকেজের মূল্য ছিল তিন লাখ চার হাজার ৯০৩ টাকা।

সারা দেশ থেকেই সরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন করা যাবে। এ জন্য এরই মধ্যে ৬৪টি জেলার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অফিসার, জেলা প্রশাসক অফিসের সহকারী আইটি প্রোগ্রামার, ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছে হজ অফিসের আইটি বিভাগ।

ডিএস