সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭

ads

চাঁদপুরে মাদরাসার মাহফিল বন্ধ নিয়ে চরম উত্তেজনা

OURISLAM24.COM
নভেম্বর ৪, ২০১৬
news-image

mahfilচাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুরের কচুয়ায় বাইছারা দারুচ্ছালাম (পুরাতন) মাদ্রাসার ৬২তম মাহফিল বন্ধ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। ৩ ও ৪ নভেম্বর মাহফিল অনুষ্ঠানের ধার্য্য ছিল। কতিপয় ব্যাক্তি তা পন্ড করে দেয়।মাহফিল বন্ধের প্রতিবাদে ও অনুষ্ঠানের দাবীতে এলাকাবাসী বৃহস্প্রতিবার (৩ নভেম্বর) মাদ্রাসা থেকে শুরু হয়ে বাইছারা বাজারে মিছিল করে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, চাঁদপুরের কচুয়ায় ধর্মভীরু দানশীল ব্যাক্তিদের সার্বিক সহযোগিতায় ১৯৫৫ সালে বাইছারা গ্রামে মাদ্রাসা স্থাপন করা হয়। এলাকাবাসী মাদ্রাসার নামকরন করেন বাইছারা দারুচ্ছালাম (পুরাতন) মাদ্রাসা।
মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠার পর থেকে গত ৬১বছর শান্তিপূর্নভাবে মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। আর এ মাহফিলে হাজার হাজার ধর্মপ্রান মুসলমান মাহফিলে আসতেন। অপেক্ষায় থাকতেন কবে মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

প্রতিবছর ৩ ও ৪ নভেম্বর বার্ষরিক ইছালে ছওয়াবের মাহফিলের তারিখ ধার্য্য করেন মাদ্রাসার এন্তেজামিয়া কমিটি। সে মোতাবেক মাহফিল হবে সবাই জানে। কিন্ত হঠাৎকরে বাইছারা গ্রামের কতিপয় ব্যাক্তি তাদের ব্যাক্তিগত স্বার্থ হাসিলে তাদের সিদ্ধান্তক্রমে মাদ্রাসার মাহফিলে বাধ সাধে। তারা মিথ্যা অভিযোগে মাহফিলটি পন্ড করে দেয়।

যেখানে গ্রামের হাজার হাজার লোক মাহফিল চায়। সেখানে ৩/৪জন ব্যাক্তি মাহফিলের বিরোধীতা করে বন্ধ করে দেয়। আর প্রশাসনের লোকজন ঐ তাদের কথায়ই উঠাবসা করছে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

অশ্লীল বা ইসলামবিরোধী পেজ-ওয়েবসাইট দেখলে কী করবেন?

এলাকাবাসী আরো জানায়, মূলত মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটিতে আসতে না পেরে সাবেক বিএনপি নবাগত আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল্যাহ আল বাকী ও তার কয়েকজন সহযোগী নিয়ে মাহফিল বন্ধ করে দেয়।

এলাকার লোকজন নিয়মমাফিক প্রফেসার বেলাল মুন্সীকে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি নির্বাচন করেছে। নবাগত আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল্যাহ আল বাকী ঐ কমিটি বাতিল করে সভাপতি হতে চায়। এ নিয়ে তিনি কোর্টে মামলা করার পর হেরে গিয়ে আপিল করেছেন বলে জানাযায়।

শুধু তাই নয়, মাদ্রাসার এতিমখানার শিক্ষার্থীদের পাকের জন্য বিগত ৬০ বছর ধরে যেখানে রান্নাঘর ছিল রান্নার চুলা ছিল। সেখানে কাঁচা হওয়ায় বর্ষার ও বৃষ্টির পানিতে চুলা ভিজে যায়। কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঐ রান্নাঘরটি পাকা করবে কিন্ত আব্দুল্যাহ আল বাকী ও তার লোকজন সেই রান্নাঘর করতে দেয়নি। এতে করে এতিম শিক্ষার্থীদের পাকের সমস্যা হওয়ায় খাওয়ারও সমস্যা হয়।

এলাকার নেতৃত্ব স্থানীয় আওয়ামীলীগের লোকজন জানান, মাহফিল ইসলাম ধর্মের লোকদের হেদায়েতের একটি বিশেষ সভা। সে মাহফিলকে বন্ধকরে আওয়ামীলীগের লোকজনকে দোষারপ করবে তা হতে দেয়া যাবেনা। তারা আওয়ামীলীগের বদনাম করার পায়তারা করছে। তারা আরো বলেন এটা বিএনপির দুই গ্রুপেরই ব্যাক্তিগত কোন্দল। তাদের কোন্দল আমাদের দলের উপর দোষ চাপাতে দেয়া যায়না।

তারা আরো বলেন, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড,মহীউদ্দীনখান আলমগীর সাহেব মাহফিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা বলেছেন। যেখানে মহিউদ্দিন খান আলমগীর নির্দেশ করেছেন সেখানে মাহফিল বন্ধ হতে পারেনা।

এদিকে এ মাহফিল বন্ধ হওয়ার প্রতিবাদে দলমত নির্বিশেষে বৃহস্প্রতিবার বাইছারা মাদ্রাসা থেকে শুরু করে এলাকাবাসী মিছিল বের করেন। তাদের দাবী একটাই আমরা মাহফিল চাই।

আরআর

এ জাতীয় আরও খবর