বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

ads

কলাকে হেলা নয়

OURISLAM24.COM
জুলাই ৩১, ২০১৬
news-image

kolaআবিদ আনজুম; আওয়ার ইসলাম

কলাকে হেলা করা মানুষের সংখ্যাই বেশি। তবে এই প্রতিবেদনটি পড়ার পর হয়তো আপনি আর হেলা করবেন না কলাকে। কারণ কলায় রয়েছে প্রচুর প্রোটিন। যা আপনার দেহকে রোগমুক্ত রেখে সতেজ করে তুলবে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে প্রতিদিন ২টি পাঁকা কলা খেলে, তা আপনাকে দীর্ঘ সুস্থ জীবন যাপনে নেতৃত্ব দিতে পারে।

এছাড়াও প্রতিদিন ২টি কলা খাওয়ার আরো কিছু উপকারিতা জেনে নিন।

উচ্চ রক্তচাপ কমে:
আপনার উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা থাকলে, প্রতিদিন ২টি কলা খেতে পারেন। কারণ এতে থাকা উচ্চমাত্রার পটাসিয়াম ও নিম্নমাত্রার সোডিয়াম শরীরের রক্ত চাপ কমাতে সাহায্য করে। এছাড়া যারা হৃদরোগে ভুগছেন, তাদের জন্য কলা অত্যন্ত সহায়ক।

কোষ্ঠকাঠিন্য:
প্রতিদিন ২টি করে কলা খেলে আপনার কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর হবে। কলার মধ্যে থাকা ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য কমাতে সহায়তা করে।

কর্মশক্তি যোগাবে:
কলার মধ্যে তিন ধরনের প্রাকৃতিক চিনির শক্তিশালী মিশ্রণ থাকে, এগুলো হচ্ছে: ফ্রুক্টোজ, গ্লুকোজ এবং সুক্রোজ। কলার এসব প্রাকৃতিক চিনি আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা বজায় রাখবে এবং আপনাকে দেবে দিনের প্রয়োজনীয় কর্মশক্তি।

বুকজ্বালা:
আপনি যদি বুকজ্বালায় ভুগে থাকেন, তাহলে আপনি জেনে খুশি হবেন যে কাঁচা কলায় প্রাকৃতিক এন্টাসিড রয়েছে।

রক্তশূন্যতা:
আয়রন প্রয়োজন? কলা থাকতে চিন্তা কিসের। লোহিত রক্তকণিকা এবং হিমোগ্লোবিন উৎপাদনে কলা সাহায্য করে।

kala2

হতাশার সঙ্গে যুদ্ধ করবে:
বৈজ্ঞানিকভাবেই প্রমাণিত হয়েছে, খাদ্যাভাস হিসেবে কলা বিষন্নতার সঙ্গে লড়াই করতে সাহায্য করে। কলার মধ্যে খুবই উচ্চ ঘনত্বের ট্রিপটোফেন নামক এক প্রকার অ্যামিনো এসিড রয়েছে। বিষন্নতায় ভুগলে তাই দিনে ২টি করে কলা খেতে পারেন। কেননা এতে থাকা ট্রিপটোফেন শরীরের সেরোটোনিনে রূপান্তিরত হয়, যা বিষন্নতা কমাতে সাহায্য করে এবং মেজাজ ভালোর দিকে নিয়ে যায়।

শরীরে হাড়ের ঘনত্ব বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে:
কলাতে যে পরিমান ক্যালসিয়াম পাওয়া যায়, তা আপনার শরীরের হাড়ের ঘনত্ব বৃদ্ধির জন্য যথেষ্ট। প্রতিদিন ২টি কলা খেলে, তা আপনাকে দেবে মজবুত পেশী। এছাড়া যারা হাড়ের গাঁটে গাঁটে বাতের ব্যাথার সমস্যায় ভুগছেন, তাদের খাদ্যাভাসে কলা রাখতে পারেন।

শরীর থেকে নিকোটিন অপসারণ করবে:
ধূমপান সম্প্রতি ছেড়ে দিয়ে থাকলে, এই সিদ্ধান্তে অটুট থাকতে সাহায্য করবে কলা। ধূমপান ছেড়ে দেওয়ার পরে শরীরের নিকোটিনের তাড়নায় আবারো ধূমপানে আসক্ত হয়ে পড়ার ঘটনা অস্বাভাবিক কিছু নয়। সুতরাং কলা খেলে তা শরীরে থেকে নিকোটিন অপসারণে ভূমিকা রাখে, ফলে ধূমপান ছাড়ার পর শারীরিক অস্বস্তির মোকাবিলা করা যাবে।

শরীরের ধকল কাটাবে:
রাতে পার্টিতে গিয়ে মদ্যপানের পর শরীরে সৃষ্ট ডিহাইড্রেশন পূরণে সহায়ক কলা। কারণ, কলায় প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম থাকায় শরীরের আদ্রতা এবং ইলেক্ট্রোলাইটস ফিরে পেতে সাহায্য করে।

আরআর